1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. afnafrahel@gmail.com : afnafrahel@gmail.com Sports : afnafrahel@gmail.com Sports
মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৭:২৪ অপরাহ্ন

ব্যাট হাতে ব্যর্থ সাকিব। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে জিতা ম্যাচ হারলো কলকাতা।

  • সময় মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ১০০৭ পঠিত
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএল-এ আজ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এর বিপক্ষে জেতা ম্যাচ হেরেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। কলকাতা নাইট রাইডার্স-এর বিপক্ষে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১০ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করলেও শেষটা ভালো করতে পারেনি কলকাতা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান সংগ্রহ করে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

টসে জিতে বোলিং করতে নেমে শুরুতেই কুইন্টন ডি ককের উইকেট তুলে নেন স্পিনার বরুণ চক্রবর্তী। ২ রান করেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন কুইন্টন ডি কক। ইনিংসের চতুর্থ তম ওভারে বোলিং করতে আসেন সাকিব আল হাসান। আর ওই ওভারে মাত্র ৪ রান দেন তিনি।

তবে এরপর ব্যাট হাতে ঘুরে দাঁড়ায় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। বি ধ্বং'সী রূপে খেলতে থাকেন সূর্যকুমা'র যাদব। প্যাট কামিন্সকে ৯৯ মিটারের বিশাল ছক্কা হাঁকিয়ে হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি। তবে এর পরের ওভারেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান সূর্যকুমা'র যাদব।

দলীয় ৮৬ রানের মাথায় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। আউট হওয়ার আগে ৩৬ বলে ৫৬ রান করেন তিনি। এরপরেই ঘুরে দাঁড়ায় কলকাতার বোলাররা। পরের ওভারেই এসে ঈশান কিশানকে প্যাভিলিয়নে ফেরান প্যাট কামিন্স।

দলীয় ১১৫ রানের মাথায় ৪৫ রান করে রোহিত শর্মা প্যাট কামিন্সের বলে আউট হলে বড় ধরনের চাপে পড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। এর ৮ রান পরেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন হার্দিক পান্ডিয়া। মাত্র ১৫ রান করে প্রসি'দ্ধ কৃষ্ণর বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

শেষ ২ ওভারে বোলিং তাণ্ডব দেখান আন্দ্রে রাসেল। দুই ওভারে তুলে নেন ৫টি উইকেট। ইনিংসের ১৮ তম ওভারে জোড়া উইকেট তুলে নেন আন্দ্রে রাসেল। শেষ ওভারে তুলে নেন তিনটি। নির্ধারিত ২০ ওভারে ১০ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান সংগ্রহ করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

আন্দ্রে রাসেল ৫টি, প্যাট কামিন্স ২ টি, সাকিব আল হাসান, বরুণ চক্রবর্তী ও প্রসি'দ্ধ কৃষ্ণ একটি করে উইকেট লাভ করেন। ৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ২৩ রানের বিনিময়ে ১ উইকেট নেন সাকিব।

১৫৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুর্দান্ত ব্যাট করতে থাকে দুই ওপেনার ব্যাটসম্যান নিতেশ রানা এবং শুভমান গিল। দুইজন মিলে গড়ে তোলেন ৭২ রানের পার্টনার'শিপ। তবে এরপর এই খেলা জমিয়ে দেন স্পিনার রাহুল চাহার। একাই ধসিয়ে দেন কলকাতার ব্যাটিং অর্ডার। ২৪ বলে ৫ টিচার এবং একটি ছক্কায় সাহায্যে ৩৩ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন গিল।

দ্রুতই প্যাভিলিয়নে ফিরেন রাহুল ত্রিপাঠী এবং অধিনায়ক ইয়ন মর'গান। রাহুল ত্রিপাঠী করেছেন ৫ এবং অধিনায়ক ইয়ন মর'গান করেছেন ৭ রান। তিনটি উইকেটই তুলে নেন রাহুল চাহার।

ব্যাটিংয়ে নেমে চার মেরে রানের খাতা খুললেও বেশিদূর যেতে পারেননি সাকিব আল হাসান। দলীয় ১২২ রানের মাথায় রহুল চাহারের চতুর্থ শিকার হয়ে ৪৭ বলে ৫৭ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন নিতেশ রানা। এরপরে কুনাল পান্ডিয়া বলে ৯ বলে ৯ রান করে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সাকিব আল হাসান।

সাকিবের আউটের পর বড় ধরনের চাপে পড়ে কলকাতা। ম্যাচে জয়ের কাছাকাছি থাকলেও শেষের দিকে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন আন্দে রাসেল এবং দীনেশ কার্তিক। জয়ের জন্য শেষ ২৮ বলে কলকাতার প্রয়োজন ছিল ৩২ রানের। ব্যাটিংয়ে তখন আন্দ্রে রাসেল এবং দীনেশ কার্তিক।

কিন্তু সেটা করে দেখাতে পারেনি এই দুই ব্যাটসম্যান। শেষ ওভারে ২ উইকেট তুলে দেন ট্রেন্ট বোল্ট। ১৫ বলে ৯ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আন্দ্রে রাসেল এবং পরের বলেই ০ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন প্যাট কামিন্স। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান সংগ্রহ করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। দীনেশ কার্তিক ১১ বলে ৮ রান করে অ'পরাজিত থাকেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!