1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

রেফারির জন্যই ২০১৪ বিশ্বকাপ জিততে পারেনি আর্জন্টিনা, কেন বলছেন লোথার ম্যাথিউজ?

  • সময় বুধবার, ২২ জুন, ২০২২
  • ২১ পঠিত

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৪ Final-এ Germany-র কাছে ০-১ গোলে হেরে যায় Lionel Messi-র Argentina। আট' বছর পরে সেই ম্যাচ নিয়ে মুখ খুললেন Germany-র প্রাক্তন

খুব কাছে গিয়েও FIFA World Cup 2014 (বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৪) জিততে পারেনি Argentina (আর্জন্টিনা)। খালি হাতে ফিরতে হয় লিওনেল মেসিকে (Lionel Messi)। Germany-র (জার্মানি) বিরু'দ্ধে সেই ম্যাচ মেসিদেরই জেতা উচিত ছিল বলে মন্তব্য করলেন জার্মানির বিশ্বকাপ জয়ী তারকা Lothar Matthäus (লোথার ম্যাথিউজ)। তাঁর মতে, বিশ্বকাপ ফাইনালে আর্জেন্টিনার পেনাল্টি পাওয়া উচিত ছিল।

এ প্রস'ঙ্গে লোথার ম্যাথুজ বলেছেন, “ফাইনালটা আর্জেন্টিনার জেতা উচিত ছিল। Manuel Neuer (ম্যানুয়েল নুয়ের) যেভাবে Gonzalo Higuaín-কে (গঞ্জালো হিগু'য়েন) ফাউল করেছিল, তার জন্য পেনাল্টি প্রাপ্য ছিল আর্জেন্টিনার। সেদিন ভাগ্যটা আমা'দের পক্ষে ছিল। তাই রেফারি পেনাল্টিটা দেননি।”

লোথার ম্যাথিউজ আরও বলেছেন, “সেদিন বড় অন্যায় হয়েছিল আর্জেন্টিনার স'ঙ্গে। অবশ্যই নুয়েরের জন্য পেনাল্টি হজম করতে 'হত আমা'দের।”

আর্জেন্টিনা শেষবার বিশ্বকাপ জেতে ১৯৮৬ সালে। প্রয়াত দিয়াগো আর্মান্দো মা'রাদোনার (Diego Maradona) হাত ধরে দ্বিতীয়বারের জন্য বিশ্বজয়ের স্বাদ পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। এরপর প্রায় ৩৫ বছর কে'টে গেল, পেরিয়ে গেল ৮ টা বিশ্বকাপ।

চলতি বছরের শেষে বসছে আরও একটি বিশ্বকাপের আসর। সেই ১৯৮৬ সালের পর আর বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়ে ওঠা হয়নি নীল-সাদা বাহিনীদের।একের পর এক কঠিন প্রতিপক্ষকে হারিয়ে ২০১৪ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালে পৌঁছন মেসিরা। গোটা বিশ্বের আর্জেন্টাইন স মর'্থকরা ফের বিশ্বজয়ের স্বপ্ন দেখেন। ম্যাচের শুরুটাও দুরন্ত করেছিল আর্জেন্টিনা।

ম্যাচের ২১ মিনিটেই গোল করে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেওয়ার সুযোগ চলে এসেছিল হিগু'য়েনের সামনে। কিন্তু নুয়েরকে একা পেয়েও জালে বল জড়াতে ব্যর্থ হন হিগু'য়েন। এরপর মেসির বাঁ পায়ের শট গোলপোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে বেড়িয়ে যায়। ৯০ মিনিট পর্যন্ত লড়াই করেও গোলমুখ খুলতে ব্যর্থ হয় আর্জেন্টিনা। এরপর অতিরিক্ত সময়ের ১১৩ মিনিটে আসে সেই স্বপ্নভ'ঙ্গের মুহূর্ত।

পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নামা জার্মান স্ট্রাইকার Mario Götze-এর (মা'রিও গোৎজে) সেই গোলে বিশ্বজয়ের স্বপ্ন ভেঙে চুরমা'র হয়ে যায় আর্জেন্টিনার। ম্যাচের শেষে কান্নায় লুটিয়ে পড়েন আর্জেন্টাইন ফুটবলার থেকে স মর'্থকরা। সেই ম্যাচে হারের আফশোস এখনও রয়েছে।

রেফারি যদি পেনাল্টি দিতেন আর মেসি যদি পেনাল্টি থেকে গোল করতেন, তাহলে হয়তো ৯০ মিনিটের মধ্যেই জিতে যেত আর্জেন্টিনা। অতিরিক্ত সময়ের ৩০ মিনিট আর খেলতে 'হত না। ১৯৯০ সালের বিশ্বকাপেও (FIFA World Cup 1990) পশ্চিম জার্মানির (West Bengal) বিরু'দ্ধে রেফারির পক্ষপাতমূলক আচরণের জন্য বিশ্বকাপ জেতা হয়নি মা'রাদোনার আর্জেন্টিনার।

বারবার বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে সেই রেফারির বিরু'দ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন মা'রাদোনা। মেসির ট্রফি ক্ যাব'িনেটে শুধু বিশ্বকাপই নেই। সেই অধ’রা খেতাব এবার কাতারে (Qatar) মেসি জিততে পারেন কিনা, সেটাই দেখার অ'পেক্ষায় সারা বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!