1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৫:৪২ পূর্বাহ্ন

প্রথম সৌদি নারী পেলেন অটোক্রস ট্রেইনার লাইসেন্স

  • সময় রবিবার, ১২ জুন, ২০২২
  • ৩৪ পঠিত

বিভিন্ন স্থানীয় অটোক্রস প্রতিযোগিতায় বেশ কয়েক বছর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার পর, আফনান আলমা'রগ্লানি সম্প্রতি প্রথম সৌদি নারী হয়েছেন যিনি একটি অটোক্রস এবং নিরাপদ ড্রাইভিং দক্ষতা প্র'শিক্ষক লাইসেন্সধারী হয়েছেন।

খেলাধুলায় তার যাত্রা শুরু হয়েছিল যখন তার মোটর স্পোর্টস-পাগল ভাই যখন তারা বড় হচ্ছিল তখন বাড়িতে একটি নতুন প্লে স্টেশন নিয়ে আসে। দুজন ভিডিও গেমে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন যেমন গ্রান তুরিসমো ৩, একটি রেসিং শিরো'নাম।

আফনান আলমা'রগ্লানি বলেন, ‌‘যখন আমি ছোট ছিলাম, তখন থেকে দেখতাম আমা'র বড় ভাই ফাহদকে স্পোর্টস কারের প্রতি আগ্রহী, সেগু'লিকে সংশোধন করা এবং বিদেশ থেকে গাড়ির যন্ত্রাংশ কিনতে।

আ মর'া ভিডিও গেমে একে অ'পরের স'ঙ্গে রেস করতাম। আমি গাড়ির দ্বারা, গাড়ির আকার, ইঞ্জিনের শব্দ এবং কীভাবে তারা অবিশ্বা'স্যভাবে দ্রুত গাড়ি চালাতো তা দেখে মুগ্ধ হয়েছিলাম। আমি প্রতিদিন গেমটি খেলেছি যতক্ষণ না এটি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, আমি আমা'র নিজের দ্রুততম ল্যাপ টাইমগু'লিকে হারাতে পারিনি।

আলমা'রগ্লানি বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে কাজ করেন। তিনি এর আগে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি প্রকল্প ব্যবস্থাপনা অফিসে তার কাজ থেকে ছুটির সময় সৌদি আরবে প্রথম নারীদের দৌড়ে অংশ নিয়েছিলেন।

একজন বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ার এবং রেসার হিসাবে তার ভূমিকার মিশ্রণ তাকে অনন্য করে তোলে এবং উভয় ক্যারিয়ারেই তার প্রতিভা তাকে এমন সুযোগগু'লি গ্রহণ করার অনুমতি দিয়েছে যা বেশিরভাগ নারীদের নেই।

একটি মা'র্কিন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী আলমা'রগ্লানি আরব নিউজকে বলেছেন, তার ভালবাসা এবং আবেগ তাকে স্পোর্টস কার নিয়ে কাজ করতে পরিচালিত করেছে এবং অ'ভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য তিনি মাঠে প্রবেশ করা বেছে নিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর এবং বিরল শাখাগু'লির মধ্যে একটি, কারণ এটি ইঞ্জিনিয়ারিং এবং মেডিসিনকে একত্রিত করে, যার ফলে স্বাস্থ্যসেবা সমস্যার সমাধান হয়৷ আমা'র কাজে আমি যে পরিমাণ চাপ এবং চাপের সম্মুখীন হচ্ছি, তার জন্য আমাকে আমা'র শক্তি আনলোড করতে হবে, এবং মোটরস্পোর্টে আমা'র শখ উপভোগ ও অনুশীলন করতে হবে।

‘আল হা'ম'দুলিল্লাহ, নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেওয়ার সি'দ্ধান্ত নিয়ে আ মর'া একটি মহান দেশে বাস করছি। তাই, আমি প্রথম নারীদের অটোক্রস চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিয়েছি এবং বাছাই পর্বে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছি।’

খেলাধুলায় তার প্রথম প্রবেশের পর, আলমা'রগ্লানি রিয়াদ, জেদ্দা এবং আলখোবারে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন স্থানীয় অটোক্রস চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেন।

‘অ'ভিজ্ঞতা এবং দক্ষতা অর্জনের পর, আমি অটোক্রস রেসিংয়ে একটি উচ্চ স্তরে চলে যাই, যা আমাকে আলখোবার টয়োটা অটোক্রস চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে সক্ষম করে এবং আমি নারীদের বিভাগে সেরা সময় জিততে সক্ষম হয়েছিলাম।’তিনি রিয়াদের দিরাব পার্কে স্পিড ম্যাডনেস (অটোক্রস) চ্যাম্পিয়নশিপেও প্রথম স্থান অধিকার করেন।

মোটরস্পোর্টে একজন নারী হিসাবে তিনি যে চ্যালেঞ্জগু'লির মুখোমুখি হন সে সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, আলমা'রগ্লানি বলেন, ‘আপনি যে কোনও শখ অনুশীলন করেন, আপনার প্র'শিক্ষণ এবং প্রাথমিক জ্ঞানের প্রয়োজন। শুরুতে, এটি আমা'র জন্য একরকম কঠিন ছিল, বিশেষ করে যেহেতু নারীদের জন্য কোনো একাডেমি ছিল না, কিন্তু সার্কিটে আমা'র সহকর্মীদের প্রচেষ্টা এবং স মর'্থন ছাড়া, আমি এখন এই পর্যায়ে পৌঁছাতে পারতাম না।’

তিনি যোগ করেন, ‘আমি যে সমস্যার মুখোমুখি হয়েছিলাম তার মধ্যে একটি ছিল আমা'দের সমাজের সমালোচনা, এই সত্য যে একটি মেয়ে গাড়ির ক্ষেত্রে প্রবেশ করে যা পুরুষদের দ্বারা আধিপত্য। কিন্তু এখন পরিস্থিতি উন্নয়নশীল এবং পরিবর্তিত হচ্ছে, বিশেষ করে যখন নারীরা অল্প বয়সে অটো রেসিং খেলায় আরো বেশি জড়িত হয়ে উঠছে এবং পেশাদার ড্রাইভার হওয়ার জন্য দৃঢ়ভাবে প্র'শিক্ষণ দিচ্ছে।’

আলমা'রগ্লানির জন্য আরেকটি বড় চ্যালেঞ্জ হল স্পনসর'শিপের সুযোগ খুঁজে পাওয়া।

তিনি বলেন, ‘মোটর স্পোর্টস একটি ব্যয়বহুল খেলা এবং একজন স্পনসর খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন, তাই সেই প্র'শিক্ষণ বজায় রাখতে এবং একটি ভাল দল এবং একটি ভাল গাড়ির জন্য প্রচুর বিনিয়োগের প্রয়োজন এবং আপনি যদি ভালো করতে চান তবে উভয়েরই প্রয়োজন৷ স্পনসর'শিপ খোঁজার উপায় হল এক্সপোজার এবং রেস জেতার মাধ্যমে।’

আলমা'রগ্লানিকে প্রায়ই জিজ্ঞাসা করা হয় যে তার খেলাধুলার বিপদ সম্পর্কে তার বাবা-মা কেমন অনুভব করেন। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই, প্রথমে, তারা আমা'র সম্পর্কে উদ্বি'গ্ন ছিল, বিশেষত যে মোটর স্পোর্টসের ঝুঁকি রয়েছে, তাই এতে সুরক্ষার স্তরটি বেশি এবং ড্রাইভার এবং

গাড়ি প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে এটি ব্যয়বহুল। আমি আমা'র পরিবারকে সুরক্ষা এবং সুরক্ষার সমস্ত উপায় ব্যাখ্যা করার পরে এবং প্রতিটি দৌড়ের পরে তারা আমা'র আবেগ এবং আনন্দ পর্যবেক্ষণ করার পরে, তারা আমাকে স মর'্থন করেছিল এবং আমাকে চালিয়ে যেতে বলেছিল, এবং তারা আমাকে উত্সাহিত করার জন্য সর্বদা প্রথম সারিতে ছিল।’

সম্প্রতি, সৌদি অটোমোবাইল এবং মোটরসাইকেল ফেডারেশনের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্ট, টুইটারের মাধ্যমে, আলমা'রগ্লানিকে একটি প্র'শিক্ষণ লাইসেন্স পাওয়ার জন্য অ'ভিনন্দন জানিয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমি বর্ণনাতীতভাবে গর্বিত বোধ করছি যে আমি আমা'র সবচেয়ে বড় উচ্চাকাঙ্ক্ষা অর্জন করতে পেরেছি, আল্লাহকে ধন্যবাদ, এবং তারপরে ভিশন ২০৩০ এর জন্য ধন্যবাদ, যা সৌদি নারীদের ক্ষমতায়িত করেছে এবং তাদের অর্জনগু'লি লিখতে তাদের এগিয়ে যেতে সক্ষম করেছে।’

আলমা'রগ্লানির লক্ষ্য হল মোটর স্পোর্টসে প্রবেশ করতে চায় এমন প্রত্যেক নারীকে স মর'্থন করা এবং বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে সৌদি আরবের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য একটি পেশাদার নারীদের মোটর স্পোর্টস দল তৈরি করা।

‘এই লক্ষ্য অর্জনের জন্য, আমি আশা করি আমা'দের প্রিয় দেশের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য স্থানীয়ভাবে এবং আঞ্চলিকভাবে অংশগ্রহণ করার জন্য আমাকে এবং অন্যান্য সৌদি নারী চালকদের জন্য স্পনসর'শিপ দেওয়া হবে।’

সূত্র: আরব নিউজ

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!