1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০৫:১২ পূর্বাহ্ন

মহানবীকে কটুক্তি: ক্ষমা না চাইলে আইপিএল’সহ ভারতে ম্যাচ বয়কটের ঘোষণা মঈন আলীর

  • সময় বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
  • ৩৬ পঠিত

ভারত যদি মু হা'ম্ম'দ(সাঃ) এর ক’টু’ক্তি’র জন্য ক্ষ'মা না চায়, তাহলে ভারতে ম্যাচ খেলতে না যাওয়া এবং আইপিএল বয়কট করার ঘোষণা দিয়েছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলী।

নিজের ব্যাক্তিগত টুইটার একাউন্টে এক টুইট বার্তায় মঈন আলী বলেন, ‘ভারত যদি তার নিন্দামূলক বক্তব্যের জন্য ক্ষ'মা না চায়, আমি আর কখনও ভারতে ম্যাচ খেলতে যাব' না। আমি আইপিএলও বয়কট করব। এবং আমি আমা'র সহকর্মী মুসলিম ভাইদের কাছেও তাই করার জন্য আবেদন করব। আমি মু হা'ম্ম'দ (সাঃ)কে ভালোবাসি।’

প্রস'ঙ্গত, ভারতের কট্টর হিন্দুত্ববাদী রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সাবেক মুখপাত্র নুপুর শর্মা এক টেলিভিশন শোতে অংশ নিয়ে মহানবী হযরত মু হা'ম্ম'দ সা. সম্পর্কে বিতর্কিত ওই মন্তব্য করেছিলেন। পরে দলটির নয়াদিল্লি শাখার গণমাধ্যম প্রধান নবীন জিন্দালও নুপুর শর্মা'র মন্তব্যের স মর'্থনে টুইট করেন।

তাদের এই মন্তব্য বিশ্বের শান্তিকামী মানুষকে বিশেষ করে মুসলিম সম্প্রদায়কে ক্ষু'ব্ধ করে তোলে। এমনকি অ'ভিযুক্তদের মন্তব্যের জেরে ভারতের কয়েকটি রাজ্যের মুসলি মর'া বিক্ষি'প্তভাবে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেন। আর এর রেশ ভারতের গণ্ডি ছাড়িয়ে বাইরের বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। অবশ্য এরপরই অনেকটা নড়েচড়ে বসে বিজেপি। পরিস্থিতি বিবেচনায় বিজেপি অ'ভিযুক্ত নুপুর শর্মাকে বরখাস্ত এবং জিন্দালকে বহিষ্কার করা করে। পরে বিজেপির এই দুই নেতা প্রকাশ্যে ক্ষ'মা চেয়ে বিবৃতিও দিয়েছেন।

ম'ঙ্গলবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে এনডিটিভি বলছে, মহানবী হযরত মু হা'ম্ম'দ সা. সম্পর্কে বিজেপি নেতা নুপুর শর্মা এবং নবীন কুমা'র জিন্দালের কটূক্তির জেরে কূটনৈতিক ক্ষোভ অব্যা'হত রয়েছে। যদিও ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার বিভিন্ন দেশে এসব ক্ষোভ প্রশমিত করার চেষ্টা করেই চলেছে। নয়াদিল্লির দাবি, ভারত ও ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার সকল ধ'র্মকেই সম্মান করে।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, মহানবী হযরত মু হা'ম্ম'দ সা. সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য ঘিরে ইরান, ইরাক, কুয়েত, কাতার, সৌদি আরব, ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, জর্ডান, আফগানিস্তান, বাহরাইন, মালদ্বীপ, লিবিয়া এবং ইন্দোনেশিয়া সহ অন্তত ১৫টি দেশ ভারতের বিরু'দ্ধে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানিয়েছে।

একইস'ঙ্গে এই দেশগু'লো নিন্দা জানানোর পাশাপাশি মহানবী হযরত মু হা'ম্ম'দ সা.-এর অ'পমান প্রত্যাখ্যান করেছে এবং ভারত সরকারকে প্রকাশ্যে ক্ষ'মা চাওয়ার দাবি জানিয়েছে।

অন্যদিকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ের মতো দেশের ভেতরেও বিরোধী দলগু'লোর তীব্র চাপের মুখে পড়েছে ভারতের বিজেপি সরকার। দেশটির বিরোধী দলগু'লো বিজেপির অ'ভিযুক্ত দুই নেতার বিরু'দ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য চাপ আরও বাড়ানোর পাশাপাশি কট্টর হিন্দুত্ববাদী এই দলটিকে আন্তর্জাতিক স্তরে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অ'ভিযোগে অ'ভিযুক্ত করেছে।

এদিকে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আ'ক্রমণাত্মক কোনো টুইট ও মন্তব্য ‘কোনোভাবেই বিজেপি সরকারের দৃষ্টিভ'ঙ্গির প্রতিফলন নয়। এগু'লো ব্যক্তিগত বা প্রান্তিক উপাদানের মতামত’।

অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অ'পারেশন (ওআইসি) বিজেপির ওই দুই নেতার মন্তব্যের নিন্দা করেছে এবং ভারতে সংখ্যালঘু মুসলিম'দের অধিকার সুরক্ষিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জাতিসং'ঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ভারতকে প্রকাশ্যে ক্ষ'মা চাইতে হবে বলে জানিয়েছে কাতার। কাতারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘‘এই ধরনের ‘ইসলামভীতিপূর্ণ’ মন্তব্যের বিরু'দ্ধে যদি শাস্তিমূলক পদ'ক্ষেপ না নেওয়া হয়, তাহলে তা মানবাধিকার রক্ষায় গু'রুতর বিপদ তৈরি এবং অত্যধিক কুসংস্কার ও প্রান্তিকতার দিকে নিয়ে যেতে পারে। যা সহিং'সতা ও ঘৃণার চক্র তৈরি করবে।’’

সৌদি আরবও বিবৃতিতে কিছু কড়া শব্দ ব্যবহার করেছে। দেশটির বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বিজেপি মুখপাত্রের বক্তব্যে নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।’

এদিকে নয়াদিল্লির কাতার দূতাবাসের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেছেন, নরেন্দ্র মোদির সরকারকে প্রকাশ্যে মন্তব্য করা থেকে নিজেকে দূরে রাখতে হবে। বার্তাসংস্থা রয়টার্স ওই কর্মকর্তার উ'দ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে, ‘আমা'দের ধ'র্মীয় অনুভূ'তিতে যেকোনো আঘা'ত সরাসরি অর্থনৈতিক সম্পর্ককে প্রভাবিত করতে পারে।’

সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) বিজেপির মুখপাত্রের বক্তব্যের নিন্দা করে মহানবী হযরত মু হা'ম্ম'দ (সা.)-এর অবমাননা প্রত্যাখ্যান করেছে। একইস'ঙ্গে ধ'র্মীয় প্রতীকগু'লোকে সম্মান করার এবং তাদের ল'ঙ্ঘন না করার পাশাপাশি ঘৃণামূলক বক্তব্য ও সহিং'সতার মোকাবিলা করার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়েছে দেশটি।

বিজেপি অবশ্য অ'ভিযুক্ত মুখপাত্র নুপুর শর্মাকে ইতোমধ্যেই বরখাস্ত করেছে এবং বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য নবীন জিন্দালকে বহিষ্কার করেছে। গত রোববার এক বিবৃতিতে দলটি জানিয়েছে, ‘বিজেপি যেকোনো ধ'র্মের, যেকোনো ধ'র্মীয় ব্যক্তিত্বের অবমাননার তীব্র নিন্দা জানায়। কোনো সম্প্রদায় বা ধ'র্মকে অ'পমান বা হেয় করে, এমন যেকোনো মতাদর্শের বিরু'দ্ধেও বিজেপির অবস্থান। বিজেপি এমন মানুষ বা মতাদর্শের প্রচার করে না।’

এদিকে দিল্লি পু'লিশের কাছে একটি অ'ভিযোগ দায়ের করেছেন অ'ভিযুক্ত নুপুর শর্মা। সেখানে তিনি অ'ভিযোগ করেছেন যে, তাকে হ'ত্যার হু’মকি দেওয়া হচ্ছে। এর আগে নুপূর শর্মা ক্ষ'মা প্রার্থনা করে টুইটারে একটি পোস্ট করেন।

সেখানে আ'ত্মপক্ষ স মর'্থন করে তিনি দাবি করেন, কারও ধ'র্মীয় অনুভূ'তিতে আঘা'ত করা তার উদ্দেশ্য ছিল না।

-কেএল

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!