1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
১৭ বছরে বিদেশ গেছি, সব কামাই বাবা-মাকে দিছি, আর বাড়ি ফিরে ৫ দিন ভাত পাইনি। বিদেশ থেকে মোবাইল আনার সময় যে তথ্য লুকালে দিতে হবে জরিমানা। পরকীয়া আটকাতে স্ত্রীর গো’পনা’ঙ্গে আঠা দিলেন স্বামী ভালো খেললে মানুষ বাহবা দেবে, আবার খারাপ খেললেও সমালোচনা করবে : লিটন দাস ভারতকে পেছনে ফেলে ৬ ডাকের ইনিংসের ম্যাচে লজ্জার রেকর্ডের পরিবর্তে বিশ্ব রেকর্ড গড়লো বাংলাদেশ ৯ মিনিটের অন্তরঙ্গ, যা জীবনের কাল হয়ে দাড়িয়েছে: বুবলী আজ ২৪ মে মঙ্গলবার, দেখে নিন দিরহাম, ডলার, ইউরো, রিয়াল, দিনার, রিংগিত ও রুপির রেট বাংলাদেশের রিজার্ভ সংকট দেখা দেওয়ায়, প্রবাসীদের কাছে সংবাদ সম্মেলন করে রেমিট্যান্স পাঠানোর আহবান জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী.! সৌদি আরবে গত সপ্তাহে গ্রেফতার বাংলাদেশীসহ ১২ হাজার ৪৫৮ জন অভিবাসী ! দুবাইতে ২৭ শে মে থেকে ২৯ শে মে পর্যন্ত সুপার সেল, মল এবং স্টোরগুলিতে 90% পর্যন্ত ছাড়

গুজরাত ফেলা এই ফাদে পড়েই ম্যাচ হেরে গেলো কেকেআর!

  • সময় রবিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৮ পঠিত

গু'জরাতের তোলা ১৫৬ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিরাট সমস্যায় পড়েছিল কলকাতা। ৩৪ রানের মধ্যে তাড়া হারিয়ে ফেলে চারটি উইকেট। কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম গু'জরাত টাইটান্স ম্যাচের সেরা চাল বেছে নেয়া হলো।

১৩তম ওভারে র'শিদ খানের বদলে যশ দয়ালকে বল করতে আনাই ম্যাচের সেরা চাল হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। গু'জরাতের তোলা ১৫৬ রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিরাট সমস্যায় পড়েছিল কলকাতা। ৩৪ রানের মধ্যে তাড়া হারিয়ে ফেলে চারটি উইকেট। ফিরে গিয়েছিলেন শ্রেয়স আয়ারও। কিন্তু কলকাতাকে ধীরে ধীরে টেনে তুলছিলেন রিঙ্কু সিংহ এবং বেঙ্কটেশ আয়ার। পঞ্চম উইকে'টে দু’জনে মিলে তুলে ফেলেছিলেন ৪৫ রান।

বেশ কিছু দর্শনীয় শট দেখা যায় তাঁর ব্যাট থেকে। কোনও বোলারকে দিয়ে কাজ হচ্ছে না দেখে গু'জরাত অধিনায়ক র'শিদের বলে নিয়ে আসেন তরুণ বোলার যশ দয়াল। তাঁর বলে অফের দিকে চালাতে গিয়েছিলেন রিঙ্কু। কিন্তু ব্যাটের কানায় লেগে বল চলে যায় উইকেটকিপার ঋ'দ্ধিমান সাহার হাতে। ২৮ বলে ৩৫ রান করে ফিরে যান রিঙ্কু। ওই সময় জুটি না ভাঙলে ম্যাচ কলকাতার দিকে ঘুরে যেতেও পারত। ফলে সেটিই ম্যাচের সেরা চাল হিসেবে বেছে নিল

টানা চার ম্যাচে হার কলকাতা নাইট রাইডার্সের। ম্যাচ শেষে শ্রেয়স আয়ার বলছিলেন ম্যাচের আগে যে পরিমাণ উদ্দীপনা তাঁদের মধ্যে ছিল তা মাঠের মধ্যে প্রকাশ করতে পারেননি। আন্দ্রে রাসেল বল এবং ব্যাট হাতে শেষ বেলায় চেষ্টা করছিলেন কিন্তু তাতেও জয় এল না। কলকাতার হারের পর শ্রেয়স বলেন, ‘‘ম্যাচের আগে উত্তেজনায় ফুটছে ছেলেরা, মাঠে নামলেই চুপসে যাচ্ছে। শেষ তিনটি ম্যাচ আ মর'া জয়ের খুব কাছ থেকে হেরেছে।’’

শনিবার শেষ ওভারে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৮ রান। প্রথম বলটাই বাউন্ডারির বাইরে পাঠান আন্দ্রে রাসেল। কিন্তু তার পরের বলেই আউট হয়ে যান তিনি। শেষ চার বলে ১২ রান তোলা সম্ভব হয়নি রাসেলহীন কলকাতার। শ্রেয়স বলেন, ‘‘পাওয়ার প্লে-তে আ মর'া অনেক বেশি রান দিয়ে ফেলেছি। ওই পরিস্থিতিতে অত রান দেওয়া ঠিক হয়নি। ১৬০-১৬৫ রান তাড়া করে জেতা সম্ভব ছিল। আ মর'া ওদের তার কমেই আট'কে দিতে পেরেছিলাম।’’

৮ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে কলকাতা। টানা চার ম্যাচে হারের পর বেশ বিপাকে দল।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!