1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

লিটনকে টি-২০তে খেলানো নিয়ে যা বললেন জেমি সিডন্স

  • সময় বৃহস্পতিবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৩ পঠিত

সর্বশেষ যিনি দায়িত্বে ছিলেন তিনি ছিলেন দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার প্রধান কোচ। পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থাকায় দলকে বহিষ্কার করা হয়। তবুও, জেমি সিডন্স বিশ্বা'স করেন যে তার এখনও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কাজ করার ক্ষমতা রয়েছে, বিশেষ করে যখন জাতীয় দলের ব্যাটার তৈরি করা হয়।

লিটন দাসের ব্যাটিং দেখে মুগ্ধ সিডন্স মনে করেন টি-টোয়েন্টি বা সাদা বলের ক্রিকে'টে তার ভালো না হওয়ার কোনো কারণ নেই।

তিনি মনে করেন, বাংলাদেশের এখনো সাকিবউয়ার হাসানকে প্রয়োজন। একান্ত সাক্ষাত্কারে, তিনি আসন্ন বিশ্বকাপ, টি-টোয়েন্টি ব্যাটিংয়ে কীভাবে উন্নতি করবেন, চার সিনিয়রের বাইরে বাংলাদেশকে দেখার সময় হয়েছে কিনা এবং নিউজিল্যান্ডে ঐতিহাসিক জয় নিয়ে তার চিন্তাভাবনা প্রকাশ করেছেন। বাংলাদেশের ব্যাটিং পরা মর'্শক অস্ট্রেলিয়ার জেমি সিডন্সের স'ঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেছেন মাহমুদুল হাসান বাপ্পি।

অবশেষে আপনাকে পাওয়া গেল…জেমি সিডন্স : হ্যাঁ, আপনি প্রথম ক্রিসমাসের সময় চেষ্টা করলেন। ওই দিন তো ছুটি ছিল। এরপর আপনিই হারিয়ে গেলেন কিছুদিনের জন্য। আজকে আবার সময় পাওয়া গেল!অনেকদিন ধরেই আপনি বাংলাদেশে ফিরবেন বলে শোনা যাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত সব ঠিকঠাক হয়ে গেল। কেমন লাগছে?

জেমি সিডন্স : আমি আসলে এটা নিয়ে খুব রোমাঞ্চিত। অনেকদিন ধরেই আসলে বাংলাদেশে ফেরার জন্য অ'পেক্ষা করছিলাম। শেষবার যখন এখানে কাজ করেছি, প্রেমে পড়ে গিয়েছিলাম জায়গাটার। এখন আবার ফিরে আসতে উন্মুখ হয়ে আছি, সবকিছু আবার নতুন করে শুরু করতেও।

আপনি শেষ কাজ করেছেন সাউথ অস্ট্রেলিয়ার কোচ হিসেবে। ওই দল ছিল টেবিলের একদম তলানিতে। পরে আপনাকে বরখাস্তও করা হয়…জেমি সিডন্স : দেখু'ন, এটা আসলে অনেক লম্বা গল্প কীভাবে আ মর'া পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে গেলাম। কিন্তু আ মর'া পাঁচ ও ছয়টা ফাইনাল খেলেছি, যদিও জিততে পারিনি। আমা'র মনে হয় ওই দলের সাতজন ক্রিকেটার অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলে খেলেছে। তাই আমা'র আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলোয়াড় পাঠানোর রেকর্ড কিন্তু এখনও ভালো।

আপনি যখন ঘরোয়া ক্রিকে'টে কাজ করবেন, তখন ওই পর্যায়ে ফল দিয়ে আসলে খুব বেশি কিছু যায়-আসে না। আমা'র মনে হয় তখন মূল ব্যাপার হচ্ছে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলোয়াড় প্রডিউস করতে পারা। সেই জায়গাটায় সফল হয়েছি বলেই মনে করি। ট্রেভিস হেড, অ্যালেক্স ক্যারি, এরা সবাই আমা'র অধীনে খেলেই অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলে গেছে।

কিন্তু তারপরও, যখন বরখাস্ত হলেন। এরপর ভেবেছেন জাতীয় পর্যায়ের কিছুতে ফিরতে পারবেন?জেমি সিডন্স : অবশ্যই আমি আশা করেছি। ব্যাটিং কোচ হিসেবে আমা'র যে রেকর্ড, সেটার প্রশংসা এখনও অনেকে করে। বাংলাদেশের খেলোয়াড়রাও আমা'র ফেরার অ'পেক্ষায় ছিল বলেই মনে হয়। ওখানকার তরুণ ক্রিকেটারদের স'ঙ্গে কাজ করতে আমি নিজেও মুখিয়ে আছি।

বিসিবি তো এখনও সি'দ্ধান্ত নিতে পারল না আপনি কোথায় কাজ করবেন। নিজের কোনো পছন্দ আছে?জেমি সিডন্স : ব্যক্তিগতভাবে তেমন কোনো পছন্দ নেই। এখনও তো বাংলাদেশে গেলাম না। জাতীয় দলের স'ঙ্গে অথবা হাই পারফরম্যান্স ইউনিট, যেখানেই কাজ করতে দেওয়া হোক আমি খুশি আছি। বাংলাদেশে যাওয়ার জন্য তর সইছে না সত্যি কথা বলতে। দেখা যাক বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আরও বেশি শক্তিশালী করতে আমি কী করতে পারি।

চাকরি ছেড়ে দেওয়ার পর বাংলাদেশের খেলা?জেমি সিডন্স : খুব বেশি আসলে না। স্কোর দেখেছি, কিন্তু দিনের পর দিন দেখিনি। নিউজিল্যান্ডের স'ঙ্গে টেস্ট সিরিজটা দেখলাম, খুব ভালো কিছু পারফরম্যান্স দেখেছি। আমা'র মনে হয় ছেলেরা ভালো খেলেছে, তবে ধারবাহিকতা নেই। বাংলাদেশে গিয়ে এই ব্যাপারগু'লোতে তাদের সাহায্য করতে চাই।

কোনো ক্রিকেটারকে কি আলাদা করে ভালো লেগেছে?জেমি সিডন্স : আমা'র মনে হয় লিটন দাস। আজকেও সেঞ্চুরি করল। তার ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ হয়েছি।লিটন লাল বলে ভালো করেছে, কিন্তু সাদা বলে গেলেই কেন যেন আর পারেন না। আপনার কি মনে হয়, তার সমস্যাটা কী?

জেমি সিডন্স : আমি তাকে সাদা বলের ক্রিকে'টে খুব বেশি দেখিনি সত্যি বলতে। কিন্তু তাকে শট বল খুব ভালো খেলতে দেখলাম। বাংলাদেশি কোনো তরুণ ক্রিকেটারের জন্য যেটা খুব আকর্ষণীয় ব্যাপার। আজকে যেই সেঞ্চুরিটা করল, খুব বাউন্সি উইকেট ছিল। এরপর দেখেন, বাংলাদেশের বাকি ব্যাটসম্যানরা কিন্তু খুব অস্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেছে।

আমা'র মতে ওর আসলে সাদা বলের ক্রিকে'টে বা টি-টোয়েন্টিতে ভালো না করার কোনো কারণ নেই। টেকনিক্যালি খুব ভালো। হাতে অনেক শট আছে। দেখা যাক সাদা বলের ক্রিকে'টে সে এখন কী করে। আমি গেলে ওর স'ঙ্গে কিছু বি'ষয়ে কাজ করব বলে ঠিক করেছি।

বাংলাদেশ একটা ঐতিহাসিক জয় পেল নিউজিল্যান্ড সিরিজে। এই জয়ের পুরোটাজুড়েই ছিলেন তরুণরা। এই জয়টাকে কীভাবে দেখেন?

জেমি সিডন্স : আমা'র মনে হয় এটা দুর্দান্ত একটা জয়। টস জিতে প্রতিপক্ষকে ব্যাটিংয়ে পাঠানো এরপর তাদেরকে অল্পে আট'কে ফেলা। ব্যাটসম্যান দারুণ পারফর্ম করেছে। বোলারদেরও খুব ভালো লেগেছে। তারা রিভার্স সুইং করিয়েছে, গতি ধরে রেখেছে, প্রতিটি ওভারেই ব্যাটসম্যানদের চাপে রেখেছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!