1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে নিয়ে মুখ খুললেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ২ উইকেট হাতে রেখেই ভারতকে হারাল বাংলাদেশ যুবারা হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে থাকবে ইয়াসির আলী আন্তর্জাতিক ম্যাচ হবে না বাংলাদেশে,সকল ধরনের ম্যাচ থেকে নিষিদ্ধ’র সিদ্ধান্ত আইসিসির মেসি, লেভানডফস্কি, রোনালদো না বেনজেমা… কে হচ্ছেন সেরা আবারও বাধা আবিদ-শফিক, হারের শঙ্কায় বাংলাদেশ স্মিথ, ওয়ার্নারের সঙ্গে ‘দ্বৈত আচরণ’ কেন? ভারত না পাকিস্তান কাকে সাপোর্ট করবে শোয়েবে এমন প্রশ্নে যে উত্তর দিলেন সানিয়া টি-টেনে প্লে-অফে চার দল চূড়ান্ত, দেখেনিন বাংলা টাইগার্সের অবস্থান মেসিকে টপকে ব্যালন ডি’অর জিততে পার লিওয়ানদোস্কি

ব্রাজিলের ছোট শহরে ​থেকে উঠে এসে বড় তারকা ভিনিসিয়াসের

  • সময় শুক্রবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৫ পঠিত

ব্রাজিলের ছোট শহরে থেকে উঠে এসে বড় তারকা ভিনিসিয়াসের

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিও স্টেটের একটি শহর সাও গন্সালো তে জন্মগ্রহণ করেন ব্রাজিলিয়াল ওয়ান্ডার বয় ভিনিশিয়াস জুনিয়র। জনসংখ্যার দিক থেকে ব্রাজিলের দ্বিতীয় এই শহরে জীবন নিয়ে রীতিমতো সংগ্রাম করে বড় হয়ে ওঠেন তিনি। ১২ জুন ২০০০ সালে একটি দরিদ্র আফ্রো-ব্রাজিলিয়ান পরিবারে জন্মগ্রহন করেন তিনি।

দরিদ্র পরিবারে জন্ম নেয়া ভিনিশিয়াস জীবনের শুরুতেই বুঝে ফেলেছিলেন এ দুর্বি'ষহ জীবন কে বদলাবার প্রধান উপায়ই হচ্ছে পরিশ্রম। ২০০৬ সালে তার বাবা তাকে নিয়ে যান সাও গন্সালোতে মুতুয়ার পাশে থাকা ফ্ল্যামেংগোর শাখা অফিসে। তিনি সেখানে তার পজিশন লেফটব্যাক বর্ণনা করেছিলেন। তিনি তার চাচা উলিসিসের সাথে আবোলিসেওতে বসবাস করতে গিয়েছিলেন যাতে যাতায়াতে সুবিধা হয়। শুরুতেই ভালো ফুটবল খেলার কারণে তিনি ফ্ল্যামে'ঙ্গো থেকে আর্থিক সুবিধার পাশাপাশি উদ্যোক্তাদের কাছে সাহায্য পেতে শুরু করেন।

২০০৭-২০১০ সালে তিনি বিখ্যাত ক্লাব ক্যান্টো ডো রিও তে ফ্ল্যামে'ঙ্গোর স্কুলে ফুটসালে অংশ নেন। এছাড়াও ২০০৯ সালে মাত্র নয় বছর বয়সে ফ্ল্যামে'ঙ্গোর জন্য একটি ফুটসাল ট্রায়ালে অংশনেন। কিন্তু তার অল্পবয়সের কারনে পরের বছর তাকে আসতে বলা হয়। তখনই তিনি সি'দ্ধান্ত নেন,যে তিনি ফুটবল খেলতে চান ফুটসাল নয়। আগস্ট ২০১০ সালে তিনি ফ্ল্যামে'ঙ্গোতে তিনি তার ফুটবল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন।

২০১৭ সালের ১৩ই মে ক্লাব অ্যাথলেটিকো মিনেইরো বিপক্ষে ব্রাজিলিয়া সিরি এ এর সাথে যখন ফ্ল্যামে'ঙ্গোর ১-১ ড্র চলছিল সেই ম্যাচের ৮২ মিনিটে সাবস্টিটিউট হিসেবে মাঠে নামেন। তার অসাধারণ খেলার প্রতিভায় মুগ্ধ করেন সকল কে। এর ২ দিন পরেই তিনি ক্লাবের সাথে চুক্তি নবায়ণ করে ২০১৯ থেকে ২০২২ নিয়ে যান। চুক্তিতে তিনি তার বেতন বৃ'দ্ধি এবং বাই আউট ক্লজ ৩০ মিলিয়ন থেকে ৪৫ মিলিয়ন ইউরোতে বৃ'দ্ধি করেন। ১০ আগস্ট ২০১৭ তে তিনি তার পেশাদার ক্যারিয়ারের প্রথম গোল টি করেন ফ্ল্যামে'ঙ্গোর হয়ে।

ম্যাচ টি ছিল কো'পা সাউথ আমেরিকা দ্বিতীয় রাউন্ডের দ্বিতীয় লীগে প্যালেস্টিনোর বিপক্ষে। সে ম্যাচে ৫-০ গোলে জয় পায় ফ্ল্যামে'ঙ্গো। তিনি ব্রাজিলিয়ান সিরি এ গোল করেন অ্যাতলেতিকো গোইয়ানিয়েন্সের বিপক্ষে। তিনি ২০১৭-১৮ মৌসুমে ফ্ল্যামে'ঙ্গোর হয়ে ৫০ ম্যাচে ১১ টি গোল করেন। তখনই তিনি নজরে আসেন রিয়াল মা'দ্রিদের হর্তাকর্তাদের।
২৩ মে ২০১৭ সালে তিনি স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মা'দ্রিদের হয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেন। যা তার ১৮ তম জন্ম'দিনের পর কার্যকর হয়,যেহেতু ইন্টারন্যাশনাল ট্রানস্ফার রুল অনুযায়ী ১৮ বছর ট্রান্সফারের সর্বনিম্ন বয়স। রিয়াল মা'দ্রিদ তাকে দলে ভেড়ায় ৪৬ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে। যেটি তখন ব্রাজিলিয়ান ফুটবলের ইতিহাসে নেইমা'রের পর দ্বিতীয় সবচেয়ে ব্যয় বহুল ট্রান্সফার।

২০ জুলাই ২০১৮ তে তাকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্লাবে ডিসপ্লে করা হয়। তার জার্সি নম্বর ছিল ২৮। ২৯ সেপ্টেম্বর মা'দ্রিদ ডার্বিতে ৮৭ মিনিটে সাবস্টিটিউট হিসেবে তিনি প্রথম মাঠে নামেন। সে বছরই ৩০ অক্টোবর কো'পা ডেলরে তে মেলিলার বিপক্ষে ম্যাচে তিনি জোড়া এসিস্ট করেন যা মা'র্কার মতে, “ম্যান অফ দা ম্যাচ” পারফরম্যান্স। ৩ নভেম্বর ২০১৮ তে তিনি সাবস্টিটিউট হিসেবে মাঠে নামা'র ১০ মিনিটের মধ্যেই তার মা'দ্রিদ ক্যারিয়ারের প্রথম গোলটি করেন রিয়াল ভায়োদিলদের বিপক্ষে। তিনি ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৭ ফেব্রুয়ারির ২০১৯ এর মধ্যে ৪ টি গোল করেন। ৬ মা'র্চ তিনি ডাচ ক্লাব আয়াক্সের বিরু'দ্ধে খেলার সময় লিগামেন্ট ইঞ্জুরিতে পড়েন যার কারনে তার মৌসুম সেখানেই শেষ হয়ে যায়।

২০১৯ সালের ১১ ডিসেম্বর তিনি চ্যাম্পিয়নস লীগে তার প্রথম গোলটি করেন বেলজিয়ান ক্লাব ব্রুগের এর বিপক্ষে। সেবছরের পহেলা মা'র্চ, বার্সেলোনার বিপক্ষে তিনি এল ক্লাসিকোতে তার প্রথম গোল টি করেন। ২০১৯-২০ মৌসুমে তিনি মা'দ্রিদের হয়ে ২৯ ম্যাচে ৩ টি গোল করেন। ৬ এপ্রিল লিভার পুলের সাথে চ্যাম্পিয়নস লীগের প্রথম লেগে তিনি গু'রুত্বপূর্ণ দুটি গোল করেন।

মা'দ্রিদ ক্যারিয়ারের প্রথম দিক টা মোটেও সুখকর যায় নি তার জন্য। ফিনিশিং এ দুর্বলতার কারণে হয়েছেন ও ট্রলের স্বীকার। তবুও ভরসা রেখেছিলেন নিজের উপর। ক্লাব ম্যানেজার দের আস্থাও অর্জন করেছিলেন। তিনি নিজের গতি ও ড্রিব্লিং স্কিলের কারণে আগে থেকেই সমা'দ্রিত হয়েছিলেন। বেলজিয়ান তারকা ইডেন হ্যাজার্ড এর অবর্তমানে তাকেই দলে রাখতে বাধ্য 'হত কোচ। তিনি তার সুযোগ কে কাজে লাগানোর চেস্টা করেছেন সব সময়।

২০২১-২২ মৌসুম টা যেন আশীর্বাদ হয়ে আসে ভিনিশিয়াস জুনিয়ারের জন্য। আলাভেসের বিরু'দ্ধে ৪র্থ গোল টি করেন তিনি। ২২ আগস্ট ২০২১ এ তিনি লেভান্তের বিরু'দ্ধে জোড়া গোল করে দল কে নিশ্চিত হার থেকে রক্ষা করেন। যার কারণে মা'দ্রিদ বস কার্লো আঞ্চেলোত্তি তাকে প্রথম একাদশে জায়গা দেন। এর পর থেকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয় নি ভিনিশিয়াস জুনিয়র কে। সুযোগ পেলেই নিজেকে মেলে ধরেছেন গোল করেছেন, করিয়েওছেন।

ফর্মে থাকা এই ভিনিশিয়াস যেন তার ভক্তদের কাছে অন্যরকমের আশার আলো। অসাধারণ প্রতিভা দিয়ে কামিয়ে নিয়েছেন ভক্তদের ভালোবাসা এবং সমালোচনাকারীদের প্রশংসা। আপন আলোয় দীপ্তি ছড়াক এটাই ভক্তদের চাওয়া ভিনিশিয়াস জুনিয়ারের কাছে। হয়ত স্টেফানো, রাউল, গু'তি, রো'নালদোর পরেই উচ্চারিত হবে তার নাম এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!