1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০৫ পূর্বাহ্ন

অস্ট্রেলিয়ার ফাইনালে ওঠার পিছনে বাংলাদেশের অবদান দেখছেন ফিঞ্চ

  • সময় শুক্রবার, ১২ নভেম্বর, ২০২১
  • ২১ পঠিত

অস্ট্রেলিয়ার ফাইনালে ওঠার পিছনে বাংলাদেশের অবদান দেখছেন ফিঞ্চ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরুর আগে স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছিল—শিরোপা জিততে পারে কোন দল?

ভারত, পাকিস্তান, ইংল্যান্ড, এমনকি ওয়েস্ট ইন্ডিজের নামও বলেছিলেন কেউ কেউ।

অস্ট্রেলিয়া খুব কম মানুষেরই ফেবারিটের তালিকায় ছিল। অথচ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের

সেমিফাইনাল শেষে টুর্নামেন্টে টিকে থাকা দুটি দলের একটি অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়াকে হিসাবের বাইরে রাখা পণ্ডিতদের দোষ দেওয়া যায় না। ২০২১–এর শুরু থেকে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে অস্ট্রেলিয়ার ফর্মটা ছিল যাচ্ছেতাই। ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ হারে অ্যারন ফিঞ্চের দল। এরপর সময় যত সামনে এগিয়েছে, আরও বাজে খেলেছে অস্ট্রেলিয়া।

জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪-১–এ ধ’রাশায়ী হয় দলটি। নিউজিল্যান্ড সিরিজে তা–ও রান পেয়েছিলেন ফিঞ্চ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেটাও করতে পারেননি, ব্যাট হাতে ব্যর্থ, দলও ব্যর্থ।

বাংলাদেশে খেলতে এসে অস্ট্রেলিয়ার নাকাল (৪-১ ব্যবধান হারে) হওয়ার গল্পটা তো সবার জানাই। প্রথম দুই সিরিজে নিষ্প্রভ ফিঞ্চ বাংলাদেশে খেলতেই আসেননি। এর মধ্যে এই তিন সিরিজের একটিতেও ছিলেন না স্টিভ স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মা'র্কাস স্টয়নিস এবং নিয়মিত ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার।

বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজের কথা চিন্তা করে তাঁদের বিশ্রাম দেয় অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড (সিএ)। এদিকে আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বে ওয়ার্নার ফিরলেও সুবিধা করতে পারেননি, দুই ম্যাচ মিলিয়ে মাত্র ২ রান। এরপরই তাঁকে একাদশের বাইরে পাঠিয়ে দেয় তাঁর সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

একে তো অস্ট্রেলিয়া টানা তিন সিরিজ হেরে এসেছে, তার ওপর তাদের প্রধান দুই ব্যাটসম্যান তর্ক সা'পেক্ষে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে সময় দিয়ে যাচ্ছেন—এসব কারণে কেউ অস্ট্রেলিয়াকে শিরোপার দাবিদার বলে ভাবেননি।

কিন্তু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যেন আমূল বদলে গেল অস্ট্রেলিয়া! ফর্মে ফেরেন ওয়ার্নার ও ফিঞ্চ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হার ছাড়া সুপার টুয়েলভে সব ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে পৌঁছে যায় অস্ট্রেলিয়া। এরপর দ্বিতীয় সেমিফাইনালে গতকাল ম্যাথু ওয়েডের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে এক ওভার হাতে রেখেই ফাইনাল নিশ্চিত করেন ফিঞ্চরা।

যে তিন সিরিজ হারের জন্য অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছিল, সেসব হারকে দলের উত্থানে কৃতিত্ব দিলেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।

সিরিজগু'লোতে হারলেও তিনি তাঁর গর্বের জায়গাটি তুলে ধরেন, ‘যে বি'ষয়ে আমি খুবই গর্বিত, সেটা হলো টি-টোয়েন্টিতে দলের গভীরতা সম্পর্কে আ মর'া আরেকটু বেশি জানতে পেরেছি। সম্ভবত নিউজিল্যান্ড থেকে ফেরার পর আ মর'া সেটা বুঝতে পারি।

দলে যারা নিয়মিত, ওরা থাকলে হয়তো দলে সুযোগ পেত না এমন অনেকেই আন্তর্জাতিক ক্রিকে'টে নিজেদের পরীক্ষা করতে পেরেছে।

আ মর'াও বুঝতে পারি যে দীর্ঘ মেয়াদে আমা'দের হাতে টি-টোয়েন্টির জন্য পর্যাপ্ত খেলোয়াড় আছে। এরপর আ মর'া ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশে যাই, ফলে কিছু খেলোয়াড় আবারও ভালো সুযোগ পায়।’

ভবি'ষ্যতে এই বাজে সময়টাই অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকে'টের জন্য ত্রাতা হয়ে দাঁড়াবে বলে মন্তব্য করেন ফিঞ্চ, ‘আগামী দু–তিন বছরের মধ্যে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকে'টের এই সময়টা আমা'দের আরও অনেক প্রতিভা খুঁজে বের করতে এবং দলের গভীরতা বৃ'দ্ধিতে সাহায্য করবে।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!