1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন

সতীর্থদের ফেসবুক ডিঅ্যাকটিভেট করার পরামর্শ দিয়েছিলেন রিয়াদ

  • সময় রবিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৯ পঠিত

সতীর্থদের ফেসবুক ডিঅ্যাকটিভেট করার পরা মর'্শ দিয়েছিলেন রিয়াদ

একরাশ 'হতাশা উপহার দিয়ে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষ করেছে বাংলাদেশ দল। মাঠ ও মাঠের বাইরের নানা ইস্যুতে এবার দল ছিল সমালোচনার কেন্দ্রে। যদিও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ শক্ত হাতে চেষ্টা চালিয়ে গেছেন দলকে চা'ঙ্গা রাখার।

একের পর এক ব্যর্থতায় টাইগাররা যে ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল, তা স্পষ্ট ছিল খেলোয়াড়দের অ'ভিব্যক্তি ও শরীরী ভাষায়।

মলিন পারফরম্যান্সের কারণে সব জায়গায় ঢালাওভাবে সমালোচনা হচ্ছিল। তা নজরে পড়েছিল ক্রিকেটারদেরও। রিয়াদসহ সিনিয়র অনেকে সমালোচনা নিয়ে অসন্তোষ জানিয়েছিলেন।

তবে দল যখন জয়ের দেখা পাচ্ছিলই না, তখন সতীর্থদের ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার না করার পরা মর'্শ দিয়েছিলেন রিয়াদ। ক্ষণে ক্ষণে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ভেতরকার চিত্র কেমন ছিল, বিডিক্রিকটাইমকে তা জানিয়েছে একাধিক বিশেষ সূত্র।

দীর্ঘদিনের অ'ভিজ্ঞতা থেকে রিয়াদ পরা মর'্শ দিয়েছিলেন, কেউ যেন ফেসবুক-ইউটিউবে সমালোচনায় চোখ না বুলান। রিয়াদ ছাড়াও একই আহ্বান জানিয়েছিলেন দলের অন্য সিনিয়ররাও।

সতীর্থদের প্রতি রিয়াদদের বার্তা ছিল এমন- কেউ যেন ফেসবুকে খেলা সম্পর্কিত বি'ষয়গু'লোতে নজর না দেন, ইউটিউবে দল সম্পর্কিত কোনো ভিডিও না দেখেন। সম্ভব হলে ফেসবুক, ইউটিউবে সাংবাদিকদের লেখা খবর, ভিডিও, প্রতিবেদন,

দর্শকদের প্রতিক্রিয়া এসব না শুনতে, কারণ এতে হিতে বিপরীত হবে। মানসিক চাপ থেকে মুক্ত রাখতে অনুরোধ করা হয়েছিল- সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগু'লোতে নিজ নিজ অ্যাকাউন্ট যেন ডিঅ্যাকটিভেট করে রাখেন।

বিশ্বকাপের শেষদিকে চাপ স্পষ্ট ছিল রিয়াদের চোখেমুখে।
ম্যাচ বাই ম্যাচ ঘুরে দাঁড়াতে অধিনায়ক রিয়াদ বেশ চেষ্টাও করেছিলেন।

সুত্র জানায়, শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হারের পর রীতিমত অন্ধকারে হাতড়ে বেড়ানোর মত অবস্থা হয়েছিল রিয়াদের। সিনিয়রদের মধ্য টুকরো টুকরো মিটিং 'হত।

সাকিব আল হাসানসহ দলের সিনিয়রও ও অ'ভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের পরা মর'্শ নিতেন রিয়াদ। প্রথমে মো হা'ম্ম'দ সাইফউদ্দিন, এরপর সাকিব আল হাসান ও নুরুল হাসান সোহান চোটে পড়লে দল দাঁড়ানোর শক্তিটুকুও হারিয়ে ফেলে।

আর এর প্রভাব দেখে গেছে দলের শেষ দুই ম্যাচে। দলের বড় এক অংশের বাজে পারফরম্যান্সের ব্যাখ্যা কোনোভাবেই খুঁজে পাচ্ছিলেন না রিয়াদ।

টুর্নামেন্টের শেষদিকে তাই রিয়াদের হাসিটাই হারিয়ে যায়। সবসময় দেখে মনে 'হত বি'ষন্ন, গভীর সংকটে চিন্তিত।

বিশ্বকাপে শেষ টিম মিটিংয়ে অধিনায়ক সতীর্থদের বিদায় দিয়েছেন এসব কথা বলে- ‘সবাই ফিট থাকবে। বিশ্বকাপ ব্যর্থতা ভুলে নতুনভাবে শুরু করতে হবে।

পাকিস্তান সিরিজে সবাইকে ঘুরে দাঁড়াতে হবে। কোচিং স্টাফদের কোনো দোষ নেই। আ মর'া মাঠে ভালো পারফরম্যান্স করতে পারিনি বলেই এমন ফলাফল হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!