1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:১১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
লিটন আমাদের দলের মূল ক্রিকেটার। দুইটা ক্যাচ ছাড়াতেই লিটন দাসের অবদান শেষ হয়ে যায়নি : ওটিস গিবসন পাকিস্তানের অলিতে গলিতে বরুণের মত বোলার ঘুরে বেড়ায়! Md Rakib হার্দিককে নিয়েই ভুল করেছে ভারত: ইনজামাম দুঃসময়ে টিম ম্যানেজমেন্টকে পাশে পাচ্ছেন লিটন সকল সমালোচনা কে পিছনে ফেলে উড়েয়ে দিতে হবে ইংল্যান্ডকে এবার মাশরাফির মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিলেন কোচ গিবসন চোট পেয়ে অনুশীলন ছাড়লেন সোহান; ইংলিশদের বিপক্ষে খেলা অনিশ্চিত চোট পেয়ে অনুশীলন ছাড়লেন সোহান; ইংলিশদের বিপক্ষে খেলা অনিশ্চিত ১৭ বছরে প্রথম দেখা: ইংলিশদের চমকে দেওয়ার অপেক্ষায় টাইগাররা ডি কক আর খেলবেন না দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে!

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ ওভারে ছক্কায় ফাইনালে সাকিবদের কলকাতা

  • সময় বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২১
  • ২০ পঠিত

আইপিএলের ১৪ তম আসরে ফাইনালে উঠলো কলকাতা নাইট রাইডার্স। রান রেটে এগিয়ে থেকে কোন মতে কোয়ালিফাই করলেও এলিমিনেটরে আরসিবিকে হারানোর পর কোয়ালিফা’য়ারে দিল্লি ক্যাপিটালসকে ৩ উইকে'টে হারিয়ে নিজেদের ইতিহাসে তৃতীয়বার আইপিএল ফাইনালে উঠলো নাইটরা।

দ্বিতীয় কোয়ালিফাই ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে সাকিব-আয়ারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে ৫ উইকে'টে ১৩৫ রান তুলতে সক্ষম হয় দিল্লি। জবাবে ৩ উইকেট ও ১ বল হাতে রেখে ফাইনাল নিশ্চিত করে মর'গ্যানের দল।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কলকাতাকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন নাইটদের দুই ওপেনার ভেঙ্কাটেশ আয়ার ও শুভমন গিল। পাওয়ারপ্লেতে দুজনে তোলেন ৫১ রান। এরপর দলকে এগিয়ে নেয়ার সাথে ৩৮ বলে ফিফটি তুলে নেন আয়ার। ৯৬ রানের জুটির পর ৪১ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৫৫ রান করে ফেরেন আয়ার।

ফিরলেও ওপেনিং জুটিতেই জয়ের ভিত গড়ে দিয়ে যান আয়ার। পরবর্তীতে গিল ৪৬ বলে ৪৬ রান করে ফিরলে শেষ দিকে দ্রুতই ফেরেন নিতিশ রানা-কার্তিকরা। শেষ ১২ বলে যখন ১০ রান প্রয়োজন তখন নেমে ৩ বলে ০ রানে আউট হন অধিনায়ক মর'গানও। শেষ ওভারে সমীকরণ দাঁড়ায় ৭ রানে।

প্রথম বলে সি'ঙ্গেল নিয়ে সাকিবকে স্ট্রাইক দেন ত্রিপাঠি। দুই বল মোকাবিলায় এলবিডব্লু আউট হন সাকিব ০ রান করেই। এরপর নারাইন ফেরে প্রথম বলেই। ক্যাচ আউট হওয়ায় স্ট্রাইক পেয়ে যান ত্রিপাঠি। শেষ দুই বলে প্রয়োজন ছিল ৬ রানের। পঞ্চম বলটিকেই ছক্কা বানিয়ে ১ বল আগেই কলকাতার জয় নিশ্চিত করেন রাহুল ত্রিপাঠি। ১১ বলে ১২ রানে অ'পরাজিত থাকেন তিনি।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ধা'রাবাহিকভাবে উইকেট হারাতে থাকে দিল্লি। মূলত দ্রুত রান তুলতে গেলেই পড়ে গেছে উইকেট। ফার্গু'সন, সাকিব, মাভি, আয়ারদের দারুণ বোলিংয়ে দ্রুত রান তুলতে ব্যর্থ হন প্যান্ট আয়াররা। এতেই ১৩৫ রানেই থামে তাদের ইনিংস। সর্বোচ্চ ৩৯ বলে ৩৬ করে ধাওয়ান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৭ বলে ৩০ রানের অ'পরাজিত ইনিংস খেলেন শ্রেয়স আয়ার।

নাইটদের হয়ে সাকিব ৪ ওভার বিনা উইকে'টে ২৮ রান দেন। ক্যাচ মিস না হলে উইকেট পেতে পারতেন সাকিব। আয়ার সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!