1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
দ্বিতীয় ম্যাচেও হেরে গিয়ে বাদ পড়ার শঙ্কায় চ্যাম্পিয়নরা অনেক মেয়েই আমাকে কিউট বলে’ হাফিজের অবিশ্বাস্য ক্যাচ নিলেন কনওয়ে; শতাব্দীর সেরা তালিকায় রাখছেন ভক্তরা! (ভিডিও) বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে জয় স্মরণীয় করে রাখতে ২৫০ শিশুর পড়াশোনার সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিলেন বাবর আজম লিটন আমাদের দলের মূল ক্রিকেটার। দুইটা ক্যাচ ছাড়াতেই লিটন দাসের অবদান শেষ হয়ে যায়নি : ওটিস গিবসন পাকিস্তানের অলিতে গলিতে বরুণের মত বোলার ঘুরে বেড়ায়! Md Rakib হার্দিককে নিয়েই ভুল করেছে ভারত: ইনজামাম দুঃসময়ে টিম ম্যানেজমেন্টকে পাশে পাচ্ছেন লিটন সকল সমালোচনা কে পিছনে ফেলে উড়েয়ে দিতে হবে ইংল্যান্ডকে এবার মাশরাফির মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিলেন কোচ গিবসন

ডিফেন্ডার যখন ‘গোলমেশিন’ পরিণত হয়

  • সময় মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১
  • ৬০ পঠিত

ডিফেন্ডার যখন ‘গোলমেশিন’ পরিণত হয়

আসল কাজ হল বাড়ির যত্ন নেওয়া। কিন্তু কিছু ডিফেন্ডারদের ডিফেন্ড এবং আ'ক্রমণ করার অভ্যাস আছে। ফুটবল বিশ্ব প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে এমন অনেক খেলোয়াড় দেখেছে। সাম্প্রতিককালে যা নতুন করে মনে করিয়ে দিয়েছেন কিছু রক্ষণপ্রহরী।

রো'নাল্ড কোম্যান, ড্যানিয়েল প্যাসারেল্লা, ফার্নান্দো হিয়েরো, লরা ব্লা ও গ্রা হা'ম আলেক্সান্ডার

অবাক করা বি'ষয় হচ্ছে, ডিফেন্ডারদের আ'ক্রমণাত্মক মনোভাবে কিন্তু উল্লেখযোগ্য সাফল্য এনে দিচ্ছে। ব্রিটিশ প্রচারমাধ্যম গার্ডিয়ান একবার একটা প্রতিবদনে জানিয়েছিল ম্যাচ নির্ধারক গোল করার ক্ষেত্রে স্ট্রাইকারদের চেয়ে ডিফেন্ডাররা এগিয়ে!

এবং সেটা ন্যূনতম ব্যবধানের ম্যাচগু'লোতে। গত কয়েক মৌসুমজুড়ে এমন দৃশ্য ফুটবলপ্রেমীরা বেশ কয়েকবার দেখেছেন সার্জিও রামোসের কল্যাণে। ৮০ থেকে ৯০ মিনিট পর্যন্ত সময়টা তো ‘রামোস টাইম’ বলেও শিরো'নাম হয়েছে প্রচারমাধ্যমে।

রামোস অনেকদিন ধরে মাঠে নেই। এই মৌসুমে রিয়াল মা'দ্রিদ ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। চোটের কারণে তার অ'ভিষেকের কোনো নামগন্ধ নেই। কিন্তু পিএসজিতে আছেন আরেক ‘রামোস’। তিনি আশরাফ হাকিমি।

ডিফেন্ডার হলেও ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই আ'ক্রমণাত্মক মর'োক্কান তারকা। এমন অনেক ডিফেন্ডারদের দেখা গেছে। এই তালিকায় সবার ওপরে আছেন বার্সেলোনা কোচ রো'নাল্ড কোম্যান। দেখে নেওয়া যাক সেইসব ডিফেন্ডারকে যাদের ‘স্ট্রাইকার’ বলাটা অমূলক হবে না।

১. রো'নাল্ড কোম্যান: অনেক সময় পেনাল্টি নেওয়ার ক্ষেত্রে কোচদের আস্থা থাকে ডিফেন্ডারদের ওপর। কোম্যান তো লা লিগায় টানা সর্বোচ্চ ২৫টি পেনাল্টি গোল করার রেকর্ডটা এখনো ধরে রেখেছেন।

পুরো ক্যারিয়ারে স্পট কিক থেকে ৯৯টি গোল করেছেন ডাচ ডিফেন্ডার। সবমিলিয়ে এই ডিফেন্ডারের গোল ২৫৩। যা ফুটবলের ইতিহাসে কোনো ডিফেন্ডারের সর্বোচ্চ গোল।

২. ড্যানিয়েল পাস্যারেল্লা: কোম্যানের পরের স্থানটা পাস্যারেল্লার। ইতালিয়ান ফুটবল হলেও তার ক্যারিয়ারের সেরা সময়টা কে'টেছে আর্জেন্টাইন ক্লাব রিভার প্লেটে।

নিজের সময়ে ডিফেন্ডারদের মধ্যে সর্বোচ্চ গোলের মালিক ছিলেন তিনি। ডিয়েগো ম্যারাডোনার চোখে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পাস্যারেল্লা ছিলেন সেরা ফুটবলার। ইতালিয়ান কিংবদন্তি ডিফেন্ডার ক্যারিয়ার শেষ করেছেন ১৭৫ গোলে।

৩. ফার্নান্দো হিয়েরো: মিডফিল্ডার হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন হিয়েরা। কিন্তু পরবর্তীতে ডিফেন্ডার হিসেবে পথচলা শুরু করেন রিয়াল মা'দ্রিদের এই কিংবদন্তি।

তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ৩২ বছরের অ'পেক্ষা ঘুচিয়ে রিয়াল জেতে চ্যাম্পিয়নস লিগের সপ্তম শিরোপা (১৯৯৭-৯৮)। ওই মৌসুমে লা লিগাতে ৩০ গোল করেছিলেন হিয়েরা। শুধু তাই নয়, স্পেনের পঞ্চম সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। সবমিলিয়ে তার গোল ১৬৩টি।

৪. লরা ব্লা (১৫২): লরা ব্লাকে সর্বকালের সেরা ডিফেন্ডারদের একজন ভাবা হয়। শুধু রক্ষণ নয়, আ'ক্রমণেও দুর্দান্ত ফরাসি এই কিংবদন্তি।

তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ফ্রান্স জেতে বিশ্বকাপ ও ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ। ১৫২ গোল করে বুট জোড়া তুলে রাখেন পিএসজির সাবেক কোচ।

৫. গ্রা হা'ম আলেক্সান্ডার (১৩০): ইংল্যান্ডের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন আলেক্সান্ডার। পরবর্তীতে স্কটল্যান্ডের হয়ে খেলেন এই রাইট ব্যাক। নিজের সময়ে পেনাল্টির রাজা হয়ে উঠেছিলেন তিনি। তার ১৩০ গোলের ৫৭টি এসেছে স্পট কিক থেকে।

আলেক্সান্ডারের সমান ১৩০টি গোল করেছিলেন রোজারিও সেনি-ও। সাও পাওলোর এই কিংদন্তি পেনাল্টি এবং ফ্রি-কিক নিতে বেশ পারদর্শী ছিলেন।

এ ছাড়া ডিফেন্ডার হলেও উল্লেখযোগ্য গোল করে আলোচনায় ছিলেন হোসে লুইস চিলাভার্ট (৬২), জনি ভেগাস (৪৫), ডিমিতার ইভাঙ্কোভ (৪৩), রেনে হিগু'ইতা (৪১) এবং জর্জ ক্যাম্পস (৪০)।

বর্তমানে খেলা ডিফেন্ডারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি গোল রামোসের। ক্যারিয়ারে ১২৭টি গোল করেছেন স্প্যানিশ কিংবদন্তি ডিফেন্ডার।

রিয়ালের প্রাক্তন ডিফেন্ডারের পেছনে আছেন আলেক্সান্ডার কোলারভ (৬২), জেরার্ড পিকে এবং জান ভেরটঙ্ঘেন (৫৫)। আলোচনার সূত্রপাত যিনি সেই ২২ বছর হাকিমি ইতোমধ্যে ২০ গোল করে ফেলেছেন।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!