1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. editor@sports-gossip.com : Edotpr Edotpr : Edotpr Edotpr
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন

তামিমের বিশ্বকাপ না খেলা নিয়ে যা বললেন মাশরাফি

  • সময় বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২৯ পঠিত

তামিমের বিশ্বকাপ না খেলা নিয়ে যা বললেন মাশরাফি

তামিমের সরে যাওয়া নিয়ে যা বললেন মাশরাফি
এ যেন বিনা মেঘে বজ্রপাত। হঠাৎ তামিম ইকবাল জানিয়ে দিলেন, আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলবেন না।

তামিমের এভাবে সরে যাওয়ায় ইতিবাচক-নেতিবাচক দুই ধরনের প্রতিক্রিয়াই আসছে। অনেকে বলছেন, দেশসেরা ওপেনারের এমন সি'দ্ধান্ত নেয়া ঠিক হয়নি। কেউবা বলছেন, সঠিক কাজটিই করেছেন তামিম।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনই যেমন মনে করছেন, তামিমের এই সি'দ্ধান্ত সাহসী এবং ইতিবাচক। এবার একইরকম কথা বললেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর'্তুজা। তার মতে, তামিম সরে গিয়ে দূরদর্শিতার পরিচয় দিয়েছেন। নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বিশাল এক স্ট্যাটাসে তামিম-ইস্যু নিয়ে বলেছেন মাশরাফি।

গত এক যুগ ধরে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলের নিয়মিত সদস্য তামিম। ২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে অ'ভিষেকের পর থেকে ২০১৮ সালের শেষভাগ পর্যন্ত বাংলাদেশের ৮৪টি টি-টোয়েন্টির মধ্যে মাত্র ১৩টি মিস করেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

তবে ২০১৯ সালের পর চিত্রটা ভিন্ন। এই সময়ে দেশের ২৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের মাত্র ৩টিতে দেখা গেছে তামিমকে। চলতি বছর তো এই ফরমেটে খেলেননি একটিও।

চলতি বছরের মা'র্চে নিউজিল্যান্ড সফরে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে ব্যক্তিগত কারণে সরে দাঁড়িয়েছিলেন তামিম। এরপর জিম্বাবুয়ে সফর এবং গত মাসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে খেলতে পারেননি হাঁটুর চোটের কারণে।

তামিম বুধবার এক ভিডিওবার্তায় আকস্মিক ঘোষণা দেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে সরে যাওয়ার। তিনি মনে করছেন, অনেকটা দিন টি-টোয়েন্টি ম্যাচ না খেলে হঠাৎ এসেই দলের তরুণদের জায়গা কেড়ে নেয়া তাদের প্রতি অবিচার হবে। তাই বিশ্বকাপের মতো বড় আসরকে বিসর্জনই দিয়ে দিলেন।

অ'ভিজ্ঞ এই ওপেনারের এমন সি'দ্ধান্তকে সম্মান জানাচ্ছেন মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘তামিমের সি'দ্ধান্তকে সবার সম্মান জানানো উচিত। সন্দে'হ নেই, তামিম বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। পরিসংখ্যানই সেটা বলছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার সব যোগ্যতাই তার ছিল। ক্রিকেট বোর্ড এবং টিম ম্যানেজম্যান্ট তাকে দলেও নিতো, জানা আছে সবার।’

মাশরাফি যোগ করেন, ‘তামিম অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানই থাকবে। জোর করে টি-টোয়েন্টি খেলে সে ফর্ম হারিয়ে ফেলুক, এটা নিশ্চয়ই কেউ চায় না। বাংলাদেশকে আরও অনেক ম্যাচ জেতাবে তামিম।’

তামিমের সরে যাওয়ার যুক্তিযুক্ত কারণ আছে বলেই মনে করেন মাশরাফি। দেশের সর্বকালের সেরা এই অধিনায়কের ভাষায়, ‘তার সি'দ্ধান্তের পেছনে কারণ আছে। তার ইনজুরি সেই কারণগু'লোর একটা।

সে গত ১৬টি ম্যাচ (১২ হবে) খেলেনি। এত বড় বিরতির পর খেলতে গেলে তার নিজের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে 'হতো। যার প্রভাব পড়তে পারতো টেস্ট আর ওয়ানডেতেও।’

এমনকি তামিম হঠাৎ দলে ঢুকে গেলে ড্রেসিংরুমেও চাপ অনুভব করতেন, ধারণা মাশরাফির। তিনি বলেন, ‘তামিমকে ড্রেসিংরুমের সবাই খুব পছন্দ করে। কিন্তু সে হয়তো এটাও গভীরভাবে ভেবেছে, এই ফরমেটে ১৬ ম্যাচ (১২) মিস করে দলে ফেরার পর কেমন অস্বস্তিতে পড়বে।’

তামিমের সি'দ্ধান্তের পর আসন্ন বিশ্বকাপে সৌম্য সরকার, লিটন দাস আর নাইম শেখের ওপর ভরসা রাখতে বললেন মাশরাফি। ব্যাটিংয়ের জন্য প্রতিকূল মিরপুরের উইকে'টে তারা রান করতে পারছেন না,

এটা নিয়ে সমালোচনার কিছু দেখছেন না তিনি। বরং ব্যাটিং উইকে'টে তাদের পারফরম্যান্সের জন্য অ'পেক্ষা করা উচিত, এমনটাই মনে করেন নড়াইল এক্সপ্রেস।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!