1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. afnafrahel@gmail.com : afnafrahel@gmail.com Sports : afnafrahel@gmail.com Sports
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০২:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
এইমাত্র পাওয়াঃ মেসিভক্তদের জন্য বিসাল দুঃসংবাদ বার্সালোনার জার্সিতে মাঠে নামা হচ্ছে না মেসির জিম্বাবুয়েকে টি২০ সিরিজ হারিয়ে দেখেনিন বাংলাদেশী ক্রিকেটাররা কে কত টাকার পুরস্কার পেল ১১৭ কোটি টাকার মার্সিডিজ হেলিকপ্টার কিনে তাক লাগালেন নেইমার হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে দুই ক্রিকেটারকে প্রশংসায় ভাসালেন মাহমুদুল্লাহ শামীম পাটোয়ারীর ঝড়ো ব্যাটিং এ নতুন বিশ্বসেরা রেকর্ড গড়ে জিম্বাবুয়েকে হারালো বাংলাদেশ মেসির পর আর্জেন্টিনার ভবিষ্যৎ বিশ্বসেরা খেলোয়ারের নাম জানালেন লিওনেল স্কালোনি লালকার্ড দেখে ১০ জনের দল নিয়ে জয় পেল না ব্রাজিল আইপিএলের জন্য বদলে গেল আইসিসির গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের ভেন্যু! ছিটকে গেলেন ফিঞ্চ, বাংলাদেশ সফরে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক যিনি কষ্টার্জিত জয় পেল আর্জেন্টিনা

ছোট বেলায় আমি একবার আমার বাবার বিড়ির প্যাকেট চুরি করেছিলাম

  • সময় মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১
  • ৯২ পঠিত

হরিয়ানার জাট পরিবারে জন্ম ভারতের প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেওয়াগের। ছোট বেলা থেকেই ক্রিকে'টের প্রতি সেওয়াগের ভালোবাসা ছিল। যেই সময় শিশুরা অন্য খেলনা দিয়ে খেলত, সেই সময় থেকেই ব্যাট নিয়ে খেলা করতেন বীরেন্দ্র সেওয়াগ। মাত্র ১২ বছর বয়সে ক্রিকেট

খেলতে গিয়ে নিজের দাঁত ভেঙে ফেলেছিলেন বীরু। তারপর ক্রিকে'টের প্রতি প্রেম ও যোগ্যতার জোরেই ভারতীয় দলে সুযোগ পেয়েছিলেন সেওয়াগ। কিন্তু ছেলেবালায় এমন কাণ্ড ঘটিয়েছিলেন সেওয়াগ যার জন্য তাকে জুতো-লাঠি দিয়ে মা'র খেতে হয়েছিল। চলুন সেওয়াগের জীবনের সেই অজানা কাহিনি।

বীরেন্দ্র সেওয়াগরা চার ভাই বোন। সেওয়াগ তৃতীয় সন্তান। মঞ্জু ও অঞ্জু সেওয়াগের দুই বড় বোন। সেওয়াগের ছোট ভাইয়ের নাম বিনোদ।শুধু চার-ভাইবোন নয়, সেওয়াগরা যৌ'থ পরিবারে থাকতেন। সেওয়াগদের পরিবার ছাড়াও তাদের স'ঙ্গে থাকতেন তাদের কাকারা'ও। আ মর'া সবাই নিজেদের মধ্যে ক্রিকেট খেলতাম।

বীরু বারো বছর বয়সে ক্রিকেট খেলতে গিয়ে নিজের দাঁত ভেঙে ফেলেন। যার পরে বীরেন্দ্র সেওয়াগের বাবা কিষাণ সেওয়াগ বীরুর খেলা বন্ধ করে দেন। সেওয়াগ জানিয়েছেন অতিরিক্ত খেলার জন্য ও পড়াশোনা না করার জন্য একাধিক তার মা তাকে মেরেছিলেন। এক বার জুতো দিয়েও সেওয়াগকে পি'টিয়েছিলেন তার মা। তবে তা খেলার জন্য নয়।

সেওয়াগ জানিয়েছেন, ছোট বেলায় আমি একবার আমা'র বাবার বিড়ির প্যাকেট চুরি করেছিলাম। বাড়ির সামনে হাসপাতালের দেওয়ালে বসে আমি ও আমা'র ভাই ও কাকার ছেলেরা একস'ঙ্গে বিড়ি খাচ্ছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সেই সময় মায়ের কাছে ধ’রা পড়ে যান সেওয়াগ। তারপর তাদের জুতো ও লাঠি দিয়ে পেটানো হয়েছিল।

এছাড়াও বীরেন্দ্র সেওয়াগের মা জানিয়েছেন সেওয়াগ স্কুলেও যেতে চাইত না। স্কুলে যাওয়ার সময় নানা ধরনের নাটক করত। সেই সময় ওর গায়ে গরম জল ছিটিয়ে দেওয়া 'হত।সেওয়াগ ছোট বেলায় এতটাই দুষ্টু ছিল যে তার মা সামলাতে হিমসিম খেত। সেওয়াগকে শাসক করার জন্যই কঠোর শাস্তির দিতেন তার মা।

ছোট বেলায় খুব দুষ্টু থাকলেও, ক্রিকেট খুব মনোযোগ সহকারে খেলতেন। তিনিই ভারতের একমাত্র ক্রিকেটার যার টেস্টে ক্রিকেট ৩০০ রান রয়েছে। একটি নয় দুটি তিনশো রান রয়েছে সেওয়াগের।ছোটবেলার স্মৃ'তি এখনও সেওয়াগকে নস্টাসজিয়ায় নিয়ে যায়। ক্রিকেট জীবনে সাফল্যের জন্য মায়ের শাসন ও ভালোবাসাকেই কৃতিত্ব দিয়েছেন নজবগড়ের নবাব।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!