1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. afnafrahel@gmail.com : afnafrahel@gmail.com Sports : afnafrahel@gmail.com Sports
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০২:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
এইমাত্র পাওয়াঃ মেসিভক্তদের জন্য বিসাল দুঃসংবাদ বার্সালোনার জার্সিতে মাঠে নামা হচ্ছে না মেসির জিম্বাবুয়েকে টি২০ সিরিজ হারিয়ে দেখেনিন বাংলাদেশী ক্রিকেটাররা কে কত টাকার পুরস্কার পেল ১১৭ কোটি টাকার মার্সিডিজ হেলিকপ্টার কিনে তাক লাগালেন নেইমার হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে দুই ক্রিকেটারকে প্রশংসায় ভাসালেন মাহমুদুল্লাহ শামীম পাটোয়ারীর ঝড়ো ব্যাটিং এ নতুন বিশ্বসেরা রেকর্ড গড়ে জিম্বাবুয়েকে হারালো বাংলাদেশ মেসির পর আর্জেন্টিনার ভবিষ্যৎ বিশ্বসেরা খেলোয়ারের নাম জানালেন লিওনেল স্কালোনি লালকার্ড দেখে ১০ জনের দল নিয়ে জয় পেল না ব্রাজিল আইপিএলের জন্য বদলে গেল আইসিসির গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের ভেন্যু! ছিটকে গেলেন ফিঞ্চ, বাংলাদেশ সফরে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক যিনি কষ্টার্জিত জয় পেল আর্জেন্টিনা

বাল্যবন্ধুকে বিয়ে, কখন ভাবতেও পারেননি একে অন্যের জীবনসঙ্গী হবেন

  • সময় সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১
  • ১২৮ পঠিত

উত্তরপ্রদেশের শহরে একস'ঙ্গে বেড়ে ওঠা সুরেশ এবং প্রিয়ঙ্কার। প্রথম দিকে প্রিয়ঙ্কার বাবার কাছে ক্রিকে'টের প্র'শিক্ষণও নিতেন সুরেশ। দু’জনের মায়ের মধ্যেও ছিল বন্ধুত্বের সম্পর্ক। কিন্তু সুরেশ-প্রিয়ঙ্কা সম্পর্কে কৈশোর বা তারুণ্যে কোনও প্রেমের আঁচড় পড়েনি। কেউ কোনওদিন ভাবতেও পারেননি একে

অন্যের জীবনস'ঙ্গী হবেন। গাজিয়াবাদের কলেজ থেকে বি টেক করেন প্রিয়ঙ্কা সিংহ চৌধুরি। তার পর একটি বেসরকারি ব্যা 'ঙ্কে চাকরি নিয়ে নেদারল্যান্ডস চলে যান। তাঁর পরিবারও গাজিয়াবাদ থেকে চলে গিয়েছিল পঞ্জাব। ফলে অনেকটাই ক্ষীণ হয়ে যায় রায়না ও চৌধুরি পরিবারের যোগাযোগ।

বেশ কিছু বছর পরে ২০০৮-এ দিল্লি বিমানবন্দরে আচমকাই দেখা দুই বাল্যবন্ধুর। সুরেশ যাচ্ছিলেন বে'ঙ্গালুরু, আইপিএল ম্যাচ খেলতে। ছুটি কাটিয়ে প্রিয়ঙ্কা ফিরছিলেন তাঁর কাজের জায়গা নেদারল্যান্ডস। ৫ মিনিট স্থায়িত্ব ছিল সাক্ষাতের। পরে দু’জনেই জানিয়েছিলেন, তখনও তাঁরা জানতেন না ভবি'ষ্যতে কী অ'পেক্ষা করে আছে তাঁদের জন্য।

৭ বছর পরে সুরেশ তখন বিশ্বকাপ খেলতে অস্ট্রেলিয়ায়। বাড়িতে বিয়ের কথা চলছিলই। অস্ট্রেলিয়ায় বসে মায়ের ফোনে সুরেশ জানতে পারেন ছোটবেলার বন্ধুর স'ঙ্গে তাঁর বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছে! কে সেই বান্ধবী? জানতে চাইলে সুরেশের মা ফোন দিয়ে দেন প্রিয়ঙ্কাকে। সেই শুরু।

পূর্ব পরিচিত হলেও নিজেদের সাতপাকে ঘোরাকে ‘অ্যারেঞ্জড ম্যারেজ’ বলতেই ভালবাসেন সুরেশ ও প্রিয়ঙ্কা। দু’জনে এ বি'ষয়েও সহমত যে পরিবারের পছন্দে সম্মতি জানিয়ে তাঁরা কোনও ভুল করেননি। ২০১৫-র ১ এপ্রিল ঘরোয়া পারিবারিক অনুষ্ঠানে দু’জনের এনগেজমেন্ট হয়। রায়না পরিবারের বাড়িতে সেই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত ছিলেন দুই পরিবারের লোকজন।

বিয়ের জন্য রায়না বেছে নিয়েছিলেন দিল্লির বিলাসবহুল হোটেল দ্য লীলা প্যালেস-কে। তাঁর বিয়ে উপলক্ষে হোটেল কার্যত হয়ে উঠেছিল চাঁদের হাট। ক্রিকেট, অ'ভিনয় এবং রাজনীতি জগতের বিখ্যাত ব্যক্তিত্বরা আমন্ত্রিত ছিলেন সেই অনুষ্ঠানে। লখনউয়ের কাবাব ও বিরিয়ানির ভক্ত রায়না তাঁর বিয়ের ভোজও সাজিয়েছিলেন নিজের পছন্দ অনুসারে। ভুলভুলাইয়ার শহরের বিখ্যাত ‘টুন্ডে কাবাব’ দোকান থেকে তাঁর বিয়ের মেনু তৈরি করতে দিল্লি গিয়েছিলেন রন্ধনশিল্পীদের একটি বিশেষ দল।

টুন্ডে কাবাবের পাশাপাশি লখনউয়ের বিখ্যাত গলহৌটি কাবাব, মাটন বিরিয়ানি, মাটন কোর্মা ছিল সুরেশ-প্রিয়ঙ্কার বিয়ের ভোজের অন্যতম আকর্ষণ। বেশির ভাগ ক্রিকেট তারকাদের স্ত্রীরা বিয়ের পরে চাকরি ছেড়ে দেন। প্রিয়ঙ্কা কিন্তু একটা সময় পর্যন্ত দীর্ঘদিন চাকরি করে গিয়েছেন। শোনা যায়, সম্প্রতি তিনি চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন। ফলে সুরেশ মাঠে খেললেই গ্যালারিতে প্রিয়ঙ্কা— এই ছবি সচরাচর ধ’রা পড়েনি। স্ত্রীর কেরিয়ারে বাধা হয়ে দাঁড়াননি রায়নাও।

২০১৭ সালে সুরেশ এবং প্রিয়ঙ্কার সংসারে আসে নতুন অতিথি। নেদারল্যান্ডসে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন প্রিয়ঙ্কা। মেয়ের নাম রাখেন ‘ গ্রে'সিয়া’।সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার এবং ফুটবলপ্রেমী প্রিয়ঙ্কা কাজ করেছেন রে'ডিয়ো জকি হিসেবেও। তাঁর সঞ্চালনায় শো বেশ জনপ্রিয়। তাঁর শো-এর মূল আলোচ্য বি'ষয় মানবাধিকার ও নারীকল্যাণ। মা এবং শিশুকল্যাণের স'ঙ্গে জড়িত একটি সংস্থাও পরিচালনা করেন প্রিয়ঙ্কা। সংস্থাটির নাম তিনি রেখেছেন মেয়ে গ্রে'সিয়ার নামে।-আনন্দবাজার

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!