1. bappy.ador@yahoo.com : admin :
  2. hostctg@gmail.com : Sports Editor : Sports Editor
  3. Onlynayeemkhanbd@gmail.com : Admin admin : Admin admin
  4. afnafrahel@gmail.com : afnafrahel@gmail.com Sports : afnafrahel@gmail.com Sports
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৫:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
মুশফিককে খেলতে না দেয়ায় নিজেদের দেশকেই ধুয়ে দিচ্ছে অজি মিডিয়া! বিশ্বকাপে কবে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-পাকিস্তান? জানা গেল সূচি অজি ক্রিকেটারের জরিপ, ৯০% লোক দেখতে চান বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ বাংলাদেশকে হারানোর ‘গোপন ফর্মুলা’ জানালেন সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং – মুস্তাফিজকে আশ্চর্যজনক আবিষ্কার বলল অস্ট্রেলিয়ান স্পিনার বাংলাদেশ আমাদের চেয়ে একটু বেশি স্মার্ট -ঃ অজি সহ অধিনায়ক টানা দুই ম্যাচ হেরেও যার প্রশংসা করলেন ম্যাথু ওয়েড একমাত্র দল হিসেবে যে রেকর্ডের মালিক এখন ব্রাজিল দেশের হয়ে খেলা নাসুম নিজ জেলায় আজীবন নিষিদ্ধ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টানা ২য় জয়কে অঘটন বলল ‘আনন্দবাজার পত্রিকা’

ব্রাজিলে বৃদ্ধি পাচ্ছে ইসলাম ধর্ম গ্রহণের হার

  • সময় রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ১১২ পঠিত

ইসলাম একটি একেশ্বরবাদী এবং ইব্রাহিমীয় ধ'র্মবিশ্বা'স যার মূল শিক্ষা হল, এক আল্লাহ ছাড়া আর কোন স্রষ্টা নেই এবং মু হা'ম্ম'দ হলেন আল্লাহর প্রেরিত সর্বশেষ ও চূড়ান্ত নবি ও রাসূল। ইসলামের বিশ্বা'স অনুযায়ী ইসলাম কোন নতুন ধ'র্ম নয়, বরং সৃষ্টির শুরু থেকেই ইসলামের উৎপত্তি।

নতুন খবর হচ্ছে, ব্রাজিলের ইসলাম গ্রহণের হার বৃ'দ্ধি পাচ্ছে। ব্রাজিলে আনুমানিক প্রায় ১০ হাজার নওমুসলিম বাস করছে। বর্তমানে দেশটিতে ১৫০টির বেশি মসজিদ বিদ্যমান। মূলত লাতিন আমেরিকায় ব্রাজিল ইসলামের কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠেছে।

গত তিন দশকে ব্রাজিলের সমাজব্যবস্থায় ইসলাম গ্রহণের হার ব্যাপকভাবে বাড়ছে। কেবল মসজিদই নয়, বরং গ্রন্থাগার নির্মাণ, শিল্পকলা স্থাপন, স্কুল নির্মাণ ও সংবাদপত্র প্রকাশসহ বিভিন্ন আর্থসামাজিক কাজে অর্থায়নের মাধ্যমেও মুসলি মর'া বড় ভূমিকা পালন করছে।

দ্বিতীয় বিশ্বযু'দ্ধের পর থেকে আরব ও মুসলিম দেশ থেকে অনেক মুসলিম ব্রাজিলে জীবিকার তাগিদে পাড়ি জমায়। বিশেষত ফিলিস্তিন, সিরিয়া, লেবাননসহ বিভিন্ন আরব দেশের মুসলি মর'া সেখানকার অ'ভিবাসী হয়। ১৯২৬ সালে ব্রাজিলের সাও পাওলো এলাকায় সর্বপ্রথম একটি ইসলামী দাতব্য সংস্থা প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৫৭ সালে মুসলিম'দের জন্য সংস্থাটি প্রথম মসজিদ স্থাপন করে। এরপর ইসলামী শিক্ষা প্রসারে একটি মা'দরাসা প্রতিষ্ঠা করা হয়। পাশাপাশি গেয়ারুলহোস এলাকায় মুসলিম'দের জন্য করবস্থান তৈরি করা হয়।

৭০-এর দশকে ব্রাজিলে প্রথম ইসলামী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। তা শুধু ব্রাজিলে নয়, বরং দক্ষিণ আমেরিকার প্রথম ইসলামী সম্মেলন ছিল। আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের সহায়তায় মিসরের ধ'র্ম ও ওয়াক বি'ষয়ক মন্ত্রণালয় এর আয়োজন করেছিল। এরপর থেকে ব্রাজিলের ইসলাম ও মুসলিম কর্মতৎপরতা বৃ'দ্ধি পাচ্ছে।

বিশিষ্ট আলেম ও পাকিস্তানের সাবেক বিচারক মুফতি তকি উসমানি বলেন, ব্রাজিলে ১০ জনকে ইসলামের দাওয়াত দিলে ৮ জনই দাওয়াত গ্রহণ করেন। তবে দাওয়াতের কাজ চালু থাকলেও বিশ্বের অন্য কিছু অমুসলিম দেশের মতো বিভিন্ন অসুবিধা সেখানে আছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর..
কপিরাইট © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | স্পোর্টস গসিপ.কম
Theme Customized By Sports Gossip
error: Content is protected !!